News

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

ADVERTISEMENT

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।মহানবী (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে নবী (সা.) দুশমন পাপাত্মাদের ওপর লানত গযব বর্ষিত হোক. ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ও উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা রাদিআল্লাহু আনহার শানে কটূক্তির প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভ সমাবেশ ও বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, নবী (সা.) এর দুশমনরাদের ওপর আল্লাহর লানত ও গযব বর্ষিত হোক।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।
ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

নবী (সা.) কে নিয়ে কটূক্তিকারী কুলাঙ্গাররা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে। ভারত সরকারকে অবিলম্বে নূপুর শর্মা ও নবীন জিন্দালকে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। নবীজীর শান ও মানের ওপর আঘাত এলে জীবনের বিনিময় হলেও উচিৎ জবাব দিতে হবে। ভারতীয় সকল পণ্য বর্জনের মাধ্যমে নবীর দুশমনদের উচিৎ শিক্ষা দিতে হবে।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।
ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

মুগদা থানা ইমাম উলামা পরিষদ : ভারতে বিজেপি মুখপাত্র রাসূল (সা.) এবং উম্মুল মুমিনীন আয়েশা (রা.) সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্যের প্রতিবাদে জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাশ, ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে তলব ও নূপুর শর্মা ও নবীন কুমার জিন্দালকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আজ মঙ্গলবার বাদ যোহর রাজধানীর মুগদা থানা ইমাম উলামা পরিষদের উদ্যোগে সংগঠনের সিনিয়র সহ সভাপতি মাওলানা মুফতি যোবায়ের আহমাদের নেতৃত্বে মানিকনগর ওয়াপদা রোড মদিনা মনোয়ারা মসজিদ থেকে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। এসময়ে বিক্ষোভ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, নবী (সা.) এর দুশমনরাদের ওপর আল্লাহর লানত ও গযব বর্ষিত হোক। নবী (সা.) কে নিয়ে কটূক্তিকারী কুলাঙ্গাররা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ করেছে। ভারত সরকারকে অবিলম্বে নূপুর শর্মা ও নবীন জিন্দালকে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।
ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

বিতর্কিত নূপুর শর্মা ও নবীর কুমার নিন্দালকে অবিলম্বে গ্রেফতার পূর্বক শাস্তি ও ভারতীয় পণ্য বর্জনের দাবিতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, মাওলানা আব্দুর রহমান, মাওলানা নূর বখস মজুমদার, মাওলানা কাশফী, মাওলানা আসাদুল্লাহ, মুফতি আব্দুল কাদের, মুফতি নূর মোহাম্মদ আজিজি, পরিষদের সেক্রেটারি মুফতি শফিক মাযহারী, মুফতি আরাফাত হুসাইন, মাওলানা রাশেদ ইমাম, মুফতি ফয়জুল্লাহ ও মুফতি হান্নান নোমানী। মিছিলটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন মুফতি মিজানুর রহমান নদভী।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ : ভারতে মহানবী (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদ এবং নূপুর শর্মা ও নবীন কুমার জিন্দালকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মুফতি সৈদয় মোহাম্মদ রেজাউল করিমের নেতৃত্বে আগামী বৃহস্পতিবার ভারতীয় দূতাবাস অভিমূখে গণমিছিল বের করা হবে। এ উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে গণমিছিল শুরু করা হবে। গণমিছিল সফল করার লক্ষ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হচ্ছে। দলের প্রচার সম্পাদক মাওলানা আহমদ আব্দুল কাইয়ূম এক বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ভারতীয় দূতাবাস অভিমূখে আগামীকালের গণমিছিল সফল করার জন্য পীর সাহেব চরমোনাই সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। আজ মঙ্গলবার বিকেলে গণমিছিলের প্রস্তুতি উপলক্ষে পুরানা পল্টনে বিভিন্ন সহযোগি সংগঠনসমূহের সাথে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় দলের মহাসচিব প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, মহানবী (সা.) ও উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়েশা (রা.) এঁর শানে বেয়াদবির বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ভারতকে অসন্তষ্ট করতে চাইছে না।

কিন্ত সরকারকে মনে রাখতে হবে মুসলমানের ঈমান ও আমলের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ জানাতে ব্যর্থ হলে সামনে তাদের জন্য দুর্দিন অপেক্ষা করছে। তিনি বলেন, নবীর প্রেম ভালবাসার চেয়ে সরকার ভারতের প্রেম ভালবাসায় মত্ত। এ ভারতপ্রেমই সরকারকে বিপর্যয়ের দিকে ঠেলে দিবে।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।
ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।


মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, দলের সহকারি মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম, অধ্যাপক সৈয়দ বেলায়েত হোসেন, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা নেছার উদ্দিন, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, হাফেজ মাওলানা ছিদ্দিকুর রহমান, মুফতি মোস্তফা কামাল, হাফেজ রফিকুল ইসলাম, ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পরিষদের সভাপতি শহিদুল ইসলাম কবির ও জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের মুফতী আখতারুজ্জামান। ভারতীয় দূতাবাস অভিমূখে অনুষ্ঠিতব্য গণমিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি সফলের আহ্বান জানিয়ে পৃথক পৃথক বিবৃতিতে দিয়েছেন,

ইসলামী মুক্তিযোদ্ধা পরিষদের আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল ওয়াদুদ ও সদস্য সচিব মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম, ইসলামী আইনজীবী পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি অ্যাডভোকেট শেখ আতিয়ার রহমান, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান শেখ ও সেক্রেটারী জেনারেল অ্যাডভোকেট শওকত আলী হাওলাদার, জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি মাওলানা ইউনুছ ঢালী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা বাছির উদ্দিন মাহমুদ।


ভারতীয় দূতাবাস অভিমুখে গণমিছিল ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি সফলের লক্ষ্যে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের থানায় থানায় ব্যাপক প্রস্তুতি চলছে। ইতোমধ্যেই গণমিছিলের পোস্টার ও ব্যানার দিয়ে প্রচারনা চলছে। থানায় থানায় প্রস্তুতি সভার মাধ্যমে ব্যাপক জনসমাবেশ করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে মহানগর ও থানা নেতৃবৃন্দ।


আহলে সুন্নাত ওয়াল জামআত : মহানবী (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদ এবং নূপুর শর্মা ও নবীন কুমার জিন্দালকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আগামীকাল বুধবার দুপুর ১টায় আহলে সুন্নাত ওয়াল জাম’আতের উদ্যোগে ঢাকাস্থ ভারতীয় দূতাবাসে একটি স্মারকলিপি পেশ করা হবে। পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি প্রতিনিধি দল দূতাবাসে গিয়ে স্মারকলিপি পেশ করবে। প্রতিনিধিদলে নেতৃত্ব দিবেন, দলের শীর্ষ নেতা সৈয়দ মুজাফফর আহমদ মুজাদ্দেদী।
মশুরীখোলা দরবার শরীফ : মশুরীখোলা দরবার শরীফের পীর সাহেব আলহাজ্জ মাওলানা শাহ মুহাম্মাদ আহছানুজ্জামান আজ মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বলেন,

সম্প্রতি বর্তমান ভারতের কট্টর হিন্দুত্ববাদী সরকার দলীয় দুই ব্যক্তি বিশ্ব মুসলমানদের প্রাণের চেয়ে প্রিয়,সমস্ত জগতের জন্য রহমত স্বরূপ সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বশেষ নবী ও রাসূল হযরত মোহাম্মদ মোস্তফা (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) ও উম্মুল মুমিনিন হযরত মা আয়েশা (রাদ্বিয়াল্লাহু আনহা) এর ব্যপারে চরম কটূক্তিপূর্ণ মন্তব্য করায় সারা বিশ্বে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।

এমনকি ইতিমধ্যে মধ্যপ্রাচ্যসহ অনেক মুসলিম দেশ ভারতীয় পণ্য বয়কটের সিদ্ধান্ত এবং তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। ভারতীয় পণ্য বয়কট করা এখন প্রত্যেক মুমিন মুসলমানের ঈমানী দায়িত্ব। কিন্তু বাংলাদেশ মুসলিম প্রধান রাষ্ট্র হয়েও এখন পর্যন্ত চলমান সংসদে কোন নিন্দা বা প্রতিবাদী বিবৃতি প্রদান করেনি। পীর সাহেব বলেন, অনতিবিলম্বে সরকারকে চলমান সংসদে একটি প্রতিবাদী বিবৃতি প্রদান করে দেশের আপামর জনগনের আকাক্সক্ষা পূরনের দাবি জানাচ্ছি এবং সাথে সাথে সকল মুসলিম ভাই বোনদের প্রতি ভারতীয় সকল প্রকারের পন্য বয়কটের আহব্বান জানাচ্ছি।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন।


খেলাফত মজলিস জার্মান শাখা : খেলাফত মজলিস জার্মান শাখার সভাপতি আলমগীর হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান ইমন আজ মঙ্গলবার এক যুক্ত বিবৃতিতে আল্লাহর রাসূল ( সা.) কে নিয়ে নূপুর শর্মা এবং দিল্লীর মূখপাত্র নবীন কুমার জিন্দালের কটূক্তির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তাদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদান করার জন্য ভারত সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। তারা বলেন, বিশ্বে শান্তি সম্প্রীতি বজায় রাখার স্বার্থেই ভারত সরকারকে এসব কুলাঙ্গারদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে। নেতৃদ্বয় সরকারের পক্ষ থেকে ভারতীয় দূতাবাসকে তলব এবং জাতীয় সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করার জোর দাবি জানান। তারা নবীর দুশমানদের বিচার না হওয়া পর্যন্ত বিশ্ব মুসলিমকে ঈমানী চেতনায় বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখার অনুরোধ জানান।


কর্মসূচি : মহানবী (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদ ও কুলাঙ্গারদের শাস্তির দাবিতে জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদেও উদ্যোগে আগামীকাল বুধবার বিকেল ৩টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মাববন্ধন কর্মসূচি পালিত হবে। সংগঠনের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ সভাপতি হাফেজ মাওলানা ইউনুছ ঢালীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মাওলানা বাছির উদ্দিন মাহমুদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে জাতীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখবেন।

ভারতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে ঢাকাসহ সারাদেশে গত কয়েক দিন বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। এর ধারাবাহিকতায় ১২ জুনও বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের জনগণ।

মহানবীকে (সা.) কটূক্তিকারী ভারতীয় বিজেপির দুই নেতাকে শাস্তি, পাঠ্যসূচিতে মহানবীর (সা.) জীবনাদর্শ অন্তর্ভুক্তসহ বিভিন্ন দাবি তুলেছেন শিক্ষার্থীরা।

১২ জুন দুপুরে ট রাজধানীর শাপলা চত্বরে তারা জড়ো হন। দুপুর ১টায় তাদের বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু হয়। এতে হাজার খানেক শিক্ষার্থী অংশ নেন।

এসময় তারা ৩টি দাবি তুলে ধরেন। এগুলো হলো-

১. বিজেপি নেতা নুপূর শর্মা ও নভিন জিন্দালের অবমাননাকর মন্তব্যের জন্য বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে রাষ্ট্রীয় প্রতিবাদ জানাতে হবে।

২. যারা বিষয়টির সঙ্গে জড়িত, তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে এবং পরবর্তীতে যাতে তারা এমন ঘটনা না ঘটাতে পারে সেজন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে আগাম সতর্কবার্তা দিতে হবে।

৩. হযরত মুহাম্মদ (সা.) সৃষ্টির সেরা জীব ও মানুষ। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে তার জীবনাচরণ অনুসরণ করা প্রয়োজন। তাই পাঠ্যসূচিতে তার জীবনাদর্শ অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

সমাবেশ শেষে নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি শাপলা চত্বর থেকে আরামবাগে কলেজের সামনের মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

পরে ডেমরার ড. মাহবুবুর রহমান মোল্লা কলেজের শিক্ষার্থীরা শাপলা চত্বর এসে বিক্ষোভ শুরু করেন। তারাও বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ করেন এবং বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে যারা কটূক্তি করেছেন; তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

এদিকে, একই দাবিতে রাজধানীর ঢাকা কলেজ ও সরকারি বিজ্ঞান কলেজের শিক্ষার্থীরাও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।

আড়ও পড়ুন

ADVERTISEMENT

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button