Health Tips

হজম শক্তি বাড়ানোর ৫টি উপায়

হজম শক্তি বাড়ানোর ৫টি উপায়: হজম শক্তির দুর্বলতা আমাদের সকল এর কম বেশি রয়েছে।ছোট থেকে বড় ,প্রতিটা বয়সের মানুষই এখন গ্যাস্ট্রিক /বদ হজম এর মতো একটি কমন সমস্যার সম্মুখীন হই। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অন্য কোনও সমস্যা না থাকলেও বদ হজম থাকবেই।যখনি আমাদের বদ হজম এর কোটা আছে তখনি আমরা ট্যাবলেট খাবার মাধ্যমে তার প্রতিকার খুঁজি।বদ হজম এর কারণে আমরা সাধারণত গ্যাস্ট্রিক ,পেট ফাফা ,পেট ব্যথা ,বমি ভাব হয়। সময় এর সাথে সেটা দীর্গস্থায়ী হয়। এর সমাধান খুঁজতে গিয়ে আমরা ট্যাবলেট এর ব্যাবহার অপরিহার্য্য মনে করি।

হজম শক্তি বাড়ানোর ৫টি উপায়


সত্যি বলতে বদ হজম আমাদের নিয়মিত কিছু অভ্যাস এর কারণে হয়। আমরা ইচ্ছা করলেই সামান্য কিছু সামান্য ব্যায়াম আর ডায়েট এর সামান্য পরিবর্তন এর মাধমে আমরা আমাদের হজম শক্তিকে আরো শক্তিশালী করতে পারি।

হজম শক্তি বৃদ্ধিতে আমাদের করণীয়ঃ

১/আপনার খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করুন

আপনার খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তন করুন

কোলাহল পূর্ণ পরিবেশ যেমন ,টিভি ,রেডিও এই গুলো যেন আমাদের খাবার সময় এর অন্যতম অভ্যাস। এমন অভ্যাস পরিবর্তন করুন।খাবার সময় অবশ্যই একটা শান্ত পরিবেশে আমাদের খাবার খাওয়া উচিত।আমরা যে ভাবে খাবার খাই তা আমাদের হজম শক্তি কে দুর্বল করে। সহজ করে বল্লে খাবার খাওয়ার সময় টিভি ওন রাখলে আমাদের মনোযোগ খাবার এর প্রতি থাকে না,যার ফলে আমরা যে খাবার খাচ্ছি তার স্বাদ গ্রহণ করতে পারি না। খাবার এর বদ হজম থেকে মুক্তি পেতে অবশ্যই খাবার সময় আপনি কি খাচ্ছেন,খাবার এর স্বাদ,খাবার কতটা মান সম্মত সেটা অনুভব করে খাবার খান।

See also  কি খেলে পায়খানা নরম হবে

মনে রাখতে হবে আমরা যখন খাবার খাই তখন তার ৫০ ভাগ হজম হয় আমাদের মুখে,তাই খাবার সময় অবশ্যই খাবার ভালোভাবে চিবিয়ে নিন। মন খারাপ,খাবার অরুচি এই গুলো আমাদের বদ হজম ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলে,তাই খাবার গ্রহণ প্রক্রিয়ার উপর নির্ভর করে আপনার আমার হজম শক্তি।খাবার এর সময় যেকোন আপনার মনোযোগ অন্য দিকে থাকবে তখন আপনি যে খাবার গ্রহণ করছেন তার সঠিক স্বাদ বা গন্ধ নিতে পারছেন না। খাবার কত তা ভালো সেটা আমাদের নাক সিদ্ধান্ত নেয় আর যেকোন চিবিয়ে খোয়া হয় তখন খাবার এর পুষ্টিগুণ অনুভব করা হয়। মনে রাখবেন আমাদের আবেগ অনুভূতি গুলো হজম শক্তির সাথে সম্পৃক্ত।

২/পানি পান করা

পানি পান করা

যে সকল মানুষ বদ হজমে ভুগেন তারা পানি কম পান করার কারণে এই সমস্যায় ভুগেন। তাই সবার আগে বেশি বেশি পানি পান করা প্রয়োজন।পানি পান করলে আমরা যে সব খাবার খাই তা খুব সহজে আমাদের খাদ্য নালী দিয়ে প্রবেশ করতে পারে।তবে মনে রাখতে হবে খাবার খাওয়ার সময় পানি পান না করাই উত্তম। খাবার খাওয়ার সময় পানি পান করলে সেটা আমাদের খাদ্য নালিতে বদ হজম এর কারণ হয়ে দাঁড়ায় বা গ্যাস সৃস্টি করে। তাই আমরা চেষ্টা করবো খাবার গ্রহণের ২০ মিনিট আগে বা ২০ মিনিট পর পানি পান করতে।এতে করে আমাদের বদ হজম বা গ্যাস হবে না সহজে।
আমাদের প্রতি দিন কম করে হলেও ১গ্লাস করে ফলের জুস পান করা অবশ্যক।ফলের জুস্ আমাদের হজম শক্তি বৃদ্ধি করে।

See also  উকুন দূর করার উপায় কি এবং উকুন দূর করার উপায় ঔষধ

৩/খাবার এর পরিবর্তন

খাবার এর পরিবর্তন

আমাদের সব সময় খেয়াল রাখা উচিত আমরা যে খাবার খাচ্ছি সেটা কতটা তাজা।তাজা শাকসবজি ও ফরমালিন মুক্ত খাবার এবং বাড়িতে রান্না করা খাবার খাওয়া উচিত।ফাস্ট ফুড ,লবন যুক্ত খাবার,চিনি যুক্ত খাবার,কলার যুক্ত খাবার কিংবা রাস্তার পশে ভাজা খাবার না খাওয়াই উত্তম।কারণ এই সব খাবার যদিও মুখরুচক হয় কিন্তু এই সব খাবারে কোনও পুষ্টি গুন্ না থাকলেও আমাদের হজম শক্তি দুর্বল করার জন্য অনেক গুনাগুন রয়েছে। এই সমস্ত খাবার থেকে যথাসম্ভব দূরে থাকা ভালো।

এ ছাড়া আমাদের ফাইভার যুক্ত খাবার খাওয়া প্রয়োজন।ফাইভার আমাদের খাবার কে খুব সহজে আমাদের খাদ্য নালিতে পৌঁছে দিতে সাহায্য করে। যেমনঃ শসা ,বাদাম ইত্যাদি। এছাড়াও আমাদের খাবারে probitic এবং prebiotic ব্যাকটেরিয়া থাকা উচিত। probitic সাধারণত দই এর মদ্যে পথ যায়,যা আমাদের হজম শক্তি বৃদ্ধি করে। prebiotic হলো probitic এর খাবার যা সাধারণত পেঁয়াজ অদা কিংবা রসুন এর মদ্যে পাওয়া যায়। যা probitic এর খাবার নিশ্চিত করে। এছাড়াও গ্লোটামিন যুক্ত খাবার আমাদের সকলের খাওয়া উচিত।

See also  চুল পড়া বন্ধ করার উপায় এবং চুল পড়া বন্ধ করার তেলের নাম

৪/ব্যায়ামঃ

ব্যায়ামঃ

প্রতি দিন সামান্য ব্যায়াম আমাদের হজম শক্তিকে বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে। মুভমেন্ট আর গ্রাভেটির মদ্যে দিয়ে খুব সহজে খাবার অন্ত্রনালীতে যেতে সাহায্য করে। মাঝে মধ্যে শুদু হাঁটার মধ্যেও আমাদের হজম শক্তি বৃদ্ধি পায়। সারা দিন শুয়ে থাকলে বা বসে থাকলে আমাদের হজম শক্তি দুর্বল হয় এবং হজম শক্তি লুপ পায়।

৫/মানসিক চাপ

মানসিক চাপ

মানসিক চাপ আপনার হজম শক্তি কে দুর্বল করে তুলে।মানসিক দুশচিন্তার ফলে আপনার মাথা ব্যথা ,গ্যাস সহ  বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। তাই মানসিক চাপ কমিয়ে দেয়ার চেষ্টা করুন। কোন ধরণের পরিবেশ আপনার মানসিক চিন্তা ও উত্তেজনা কমাতে পারে সেটা আপনি টিক করে নিন। তবে আপনি চাইলে,হাঁটা ,মেডিটেশন,ইয়োগা করতে পারেন।আমরা যখন দুশ্চিন্তা বা উত্তেজনা অনুভব করি তখন আমাদের আবেগ বাড়ে যায়,সেটা আমাদের হজম শক্তি কে দুর্বল করে তুলে।
তাই হজম শক্তি বাড়াতে আপনি আপনার প্রতি দিন এর নিয়ম পাল্টে নতুন ভাবে শুরু করুন,অভ্যাস পাল্টে নিন,সুস্থ সুন্দর জীবন উপভুক্ত করুন।ধন্যবাদ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button